দক্ষিণ সুরমা থানা এলাকায় ভূয়া ডিবি পুলিশ পরিচয়কারী আটক

0
94

নিজস্ব প্রতিবেদক:: ২৯ এপ্রিল সন্ধ্যা অনুমান সাড়ে ৬ ঘটিকার সময় শহিদুল ইসলাম শহিদ রাস্তায় এসে ডিবি পুলিশ পরিচয় দিয়ে কবির মিয়া (২৪) পিতা-মৃত কলমদর আলী, সাং-নোয়াগাঁও, থানা-জালালাবাদ, জেলা – সিলেট এর সিএনজি থামায়। অতঃপর সিএনজি দাঁড় করে প্লাষ্টিক ব্যবসায়ী মোঃ গোলাম রব্বানী (৪০) পিতা-মৃত এনামুল হক, সাং-আমনুড়া, থানা-চাপাই নবাবগঞ্জ সদর, জেলা -চাপাই নবাবগঞ্জ, বর্তমানে -আব্দুর রহমান এর কলোনী, খোজারখলা, থানা -দক্ষিণ সুরমা, জেলা -সিলেট এর নিকট হতে বিভিন্ন প্লাষ্টিকের সামগ্রী হাতে নিয়ে ডিবি পুলিশ পরিচয় প্রদান করে টাকা না দিয়ে চলে যেতে চায়। তখন প্লাষ্টিক ব্যবসায়ী তার মালামালের টাকার জন্য চিৎকার শুরু করলে, তাৎক্ষণিক আব্দুল খালেক মিয়া, আশ-পাশের স্থানীয় লোকজন সহ দক্ষিণ সুরমা থানা পুলিশ জানালে তারা কৌশলে তাকে আটক করে হেফাজতে নেয়। তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

এর আগে ঐ ভূয়া ডিবি পুলিশ জনৈক আব্দুল খালেক মিয়া(৬৫) পিতা-মৃত ইসমাইল মিয়া,সাং-কদমচাল, থানা – অষ্টগ্রাম,জেলা-কিশোরগঞ্জ, বর্তমানে-বাইপাস ফিজা কোম্পানীর বাসা, লামাহাজরাই, মোল্লারগাঁও, থানা -দক্ষিণ সুরমা, জেলা- সিলেট এর বাসায় প্রবেশ করে ভূয়া ডিবি পুলিশ পরিচয় দিয়ে শহিদুল ইসলাম শহিদ (৪১) পিতা -আব্দুল হাসিম, মাতা-তৈমুন নেছা, সাং -সোনাতলা, থানা -জালালাবাদ, জেলা-সিলেট তাহার বসত ঘরে তল্লাশি শুরু করে এবং টাকা চায়। তল্লাশির এক পর্যায়ে ঘরের মালিক আব্দুল খালেক মিয়া শহিদুল ইসলাম শহিদকে তল্লাশির কারন জিজ্ঞাসা করলে, সে নিজেকে ডিবি পুলিশের ইনফরমেশন অফিসার বলে পরিচয় দেয়।

ভূয়া ডিবি পুলিশ আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন দক্ষিণ সুরমা থানার অফিসার ইনচার্জ মো: মনিরুল ইসলাম।

উত্তর দিন

দয়া করে এখানে আপনার মন্তব্য লিখুন
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন