বঙ্গবন্ধুর স্নেহধন‍্য জকিগঞ্জের আব্দুল আহাদের ইন্তেকাল

0
24

জকিগঞ্জ প্রতিনিধি :: বঙ্গবন্ধুর স্নেহধন্য বীর মুক্তিযোদ্ধা জকিগঞ্জের আব্দুল আহাদ গত রাত ২:১২ মিনিটে ইন্তেকাল করেছেন। ইন্না-লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঘনিষ্ঠ সহচর চট্রগ্রামের মরহুম আলহাজ্ব জহুর আহমেদ চৌধুরী ইন্তেকালের পর তাঁর মেয়ে শিরিন এর সাথে আব্দুল আহাদের বিয়ের সকল কিছু করেছিলেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। নিজ কন্যার বিয়ের মতো সকল আয়োজন করেছিলেন তিনি।

আব্দুল আহাদের কর্মীরা আজ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বড় বড় নেতা, কেউ এম,পি কেউবা মন্ত্রী।

প্রাক্তন কানাডা আওয়ামীলীগ নেতা এবং বাংলাদেশ জাতীয় শ্রমিক লীগ নেতা ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা এম এ আহাদ ।
এম এ আহাদ মন্ট্রিয়াল এবং অন্টারিও শহরে বাঙালি কমিউনিটির এক কিংবদন্তীর নাম। আওয়ামী লীগ পরিবারের প্রিয় মানুষ। ১৯৮৮ সালে আহাদের উদ্যোগে প্রথম কানাডা আওয়ামী লীগ গঠনের সিদ্ধান্ত হয়। তার বাসায় মন্ট্রিয়ালের স্থানীয় বাঙালি প্রবাসী, বঙ্গবন্ধু প্রেমিক , মুক্তিযুদ্ধের আদর্শিক কর্মীবৃন্দ নিয়ে – কানাডা কমিটি গঠনের যাত্রা শুরু করেন ।
১৯৯১ সালে পূর্ণাঙ্গ কানাডা আওয়ামীলীগ কমিটি গঠন করা হয়। ১৯৯৩ সালে জননেত্রী শেখ হাসিনা প্রথম কানাডা সফর করেন , মন্ট্রিয়াল DAWSON কলেজের মিলায়াতনের সভায় তিনি প্রস্তাব রাখেন কানাডা , যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য কমিটিকে – বাংলাদশের জেলা কমিটি অথবা মহানগর কমিটির সমমর্যাদা যেন দেওয়ার হয় – পরবর্তীকালে বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী এই প্রস্তাব পাশ করেন।
৯১ সালে প্রথম সম্মেলনে যদিও বেশির ভাগ কর্মী সমর্থক আহাদকে সভাপতি হিসাবে সমর্থন দিয়েছিলেন। কিন্তু উনি স্বেচ্ছায় সভাপতি প্রার্থীতা প্রত্যাহার করেন। অন্যজনকে সমর্থন দিয়ে , নিজে উড্র করেন । তার আসল কারন হিসাবে জানা যায়, তিনি বাংলাদেশে জাতিয় শ্রমিক লীগের উচ্চ প্রদস্ত নেতা হওয়াতে , কানাডা আওয়ামীলীগের লিডারশীপ নিতে চান নাই। বীর মুক্তিযোদ্ধা এম এ আহাদ চট্টগ্রামের বিশিষ্ট রাজনীবিদ জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর প্রথম জাতীয় সংসদ শ্রম ও পরিকল্পনা মন্ত্রী মরহুম জহুর আহমেদ চৌধুরীর মেয়ের জামাতা। জননেত্রী শেখ হাসিনা এবং আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ মন্ত্রী পরিষদ মন্ট্রিয়ালে ভ্রমণ বা রাষ্ট্রীয় সফরে আসিলে উনার অতিথীয়তা গ্রহণ করতেন। নেত্রী শেখ হাসিনা আহাদের পরিবারকে নিজের পরিবারের মত ভালবাসতেন।
সেই সময় হাতেগনা মুষ্টিমেয় কয়েক জন লোক ছাড়া মন্ট্রিয়ালে যারা আওয়ামীলীগ নেতা সেজেছেন বা হয়েছেন তাদের ঢাকার জাতিয় নেতাদের সাথে পরিচয় এবং একসাথে বসার সুযোগ করে দিয়েছিলেন আব্দুল আহাদ ।
মন্ট্রিয়ালে বাঙালি কমিউনিটি দল মত ধর্ম নির্বিশেষে উনাকে সবাই খুব ভালবাসেন। একজন জনপ্রিয় সাদা মনের নিরহঙ্কারী বাঙালি নেতা ছিলেন।
মরহুমের ১ম জানাযার নামাজ অনুষ্ঠিত হবে দামপাড়া বাড়ির প্রাঙ্গনে আজ সকাল ১০:০০ ঘটিকায়। ২য় জানাযার নামাজ হবে জকিগঞ্জের পিল্লাকান্দিতে। জকিগঞ্জের জানাযার সময় পরে জানানো হবে।

উত্তর দিন

দয়া করে এখানে আপনার মন্তব্য লিখুন
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন