সিলেটের দক্ষিন সুরমার বাইপাসে স্বপন ট্রান্সপোর্টে চুরি,৬ লক্ষ টাকা লোট

0
21

দক্ষিন সুরমা প্রতিনিধি :: সিলটের দক্ষিন সুরমার বাইপাসে স্বপন ট্রান্সপোর্ট অফিসে দূর্ধর্ষ চুরির ঘটনা ঘটেছ। ২৯ জানুয়ারি শুক্রবার দিবাগত রাত ৪টায় এ ঘটনা ঘটে। শনিবার সকাল ১০টায় ট্রান্সপোর্টের ম‍্যানেজার মারুফ আহমদ অফিস খুলে ভিতরে প্রবেশ করে দেখতে পান আলমিরার ড্রয়ার ভাঙ্গা এবং টাকা নেই।সাথে সাথে চুরির বিষয়টি প্রতিষ্টানের স্বত্ত্বাধীকারী স্বপনকে অবহিত করেন। তিনি অফিসে আসার পর চুরির আলামত দেখে মোবাইল ফোনে দক্ষিন সুরমা থানাকে অবহিত করেন। খবর পেয়ে দক্ষিন সুরমা থানার অফিসার ইনচার্জ মনিরুল ইসলাম নিজে স্বঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং বিভিন্ন আলামত সংগ্রহ করেন। থানা থেকে মাত্র ২শত গজ দূরত্বের মধ‍্যে বাইপাস বিশ্বরোডে চুরির ঘটনায় স্থানীয়রা হতবাক।
এব‍্যাপারে স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানাযায় চুরির ঘটনা পরিকল্পিত ঘটনা। যদি সত‍্যিকারের চুরি হতো তাহলে একটি ড্রয়ার ভাঙ্গা হবে কেন, সবগুলো ড্রয়ার ভাঙ্গার কথা। কিন্তু একটি ড্রয়ার ভাঙ্গায় সন্দেহের তীর অফিসের লোকদের উপর পরে।
প্রতিষ্টানের স্বত্বাধিকারী স্বপন এই প্রতিবেদককে বলেন, নিরাপত্তাকর্মীসহ স্টাফ কারো উপর আমার সন্দেহ নাই। কিন্ত আলমারির বিভিন্ন ড্রয়ারে ১০ লক্ষ টাকা থাকার পরও কেন চুরেরা শুধুমাত্র একটি ড্রয়ার ভেঙ্গে প্রায় ৬ লক্ষ টাকা লোটে নেয়, আর বাকী সবগুলো ড্রয়ারে হাতই দিলনা এখানেই প্রশ্নের জন্ম দিয়েছে। এছাড়াও অফিসের কম্পিউটার, টিভি থাকার পরও কিছুই নেয়নি।
এই জন‍্য আমার সন্দেহ হচ্ছে অফিসের সাথে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ আছে এমন লোক চুরিতে জ্বড়িত। চুরেরা পায়ের মোজা ইসক্রুড্রাইভার আলামত হিসেবে ফেলে যায়। বিষয়টি মোবাইল ফোনে এসএমপি কমিশনার নিশারল আরিফকে অবহিত করা হয়েছে।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন দক্ষিন সুরমা বাইপাস ব‍্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক তাজুল ইসলাম।
তিনি ঘটনাটিকে চুরি হিসেবে মেনে নিতে পারছেনন।
তাহারও সন্দেহ অফিস কানেকটেড লোকের উপর।
এ রিপোর্ট লিখা পর্যন্ত থানায় লিখিত কোন অভিযোগ দায়ের করা হয়নি।

উত্তর দিন

দয়া করে এখানে আপনার মন্তব্য লিখুন
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন