১০ পর্বের অ্যানিমেশন সিরিজে আসছে বঙ্গবন্ধুর জীবনী: পলক

0
115

মুজিববর্ষে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আত্মজীবনীকে ১০০ মিনিটের অ্যানিমেশন সিরিজে তুলে ধরার উদ্যোগ নিয়েছে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ। বুধবার (১৭ মার্চ) রাজধানীর আগারগাঁওয়ে আইসিটি মিলনায়তনে জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে এই উদ্যোগের কথা জানান প্রতিমন্ত্রী।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক জানান, বঙ্গবন্ধু জীবনের পাঁচটি স্তরকে ১০ পর্বের অ্যানিমেশন সিরিজে তুলে ধরা হবে। প্রতিটি পর্বের দৈর্ঘ্য হবে ১০ মিনিট।

এ সময় জুনাইদ আহমেদ পলক আরও জানান, জাতির জনকের জন্মশতবার্ষিকীতে শিশুদের জন্য আমরা একটা অ্যানিমেশন ফিল্ম ‘মুজিব আমার পিতা’র নির্মাণকাজ শেষ করেছি। এই ফিল্মই হবে বাংলাদেশের প্রথম অ্যানিমেশন ফিল্ম।

আনুষ্ঠানিকভাবে প্রদর্শনের আগে কারিগরি কিছু ত্রুটি দেখা দিয়েছে, যা দ্রুত সংশোধন করে প্রদর্শনের জন্য প্রস্তুত করা হবে বলেও জানান তিনি।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘মুজিব আমার পিতা’ এই সিনেমায় বঙ্গবন্ধু জন্ম, শৈশব-কৈশোর এবং তার রাজনৈতিক সংগ্রামের ইতিহাস তুলে ধরা হবে। বিশেষ করে মহান ভাষা আন্দোলনে বঙ্গবন্ধুর অবদানকে প্রাধান্য দেয়া হয়েছে এই সিনেমায়।

জাতির পিতার স্মৃতি সংরক্ষণের লক্ষ্যে বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণের ভিডিও ভার্সনকে হাই ডেফিনেশনে রূপান্তরিত করেছে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ। ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণের এই আধুনিক ভার্সনের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর দেশপ্রেম সম্পর্কে জানতে পারবে ভবিষ্যৎ প্রজন্ম।

এ সময় ২০১৭ সালে ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ ডকুমেন্টস হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করায় ইউনেসকোকে ধন্যবাদ জানান জুনাইদ আহমেদ পলক।

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু সারাজীবন মেহনতি মানুষের জন্য কাজ করে গেছেন। ৫৫ বছরের জীবনকালে বঙ্গবন্ধু মানুষের মুক্তি সংগ্রামে নেতৃত্ব দেয়ার জন্য ১৪ বছরই কারাগারে পাঠিয়েছেন। কিন্তু দেশি-বিদেশি ষড়যন্ত্রে সোনার বাংলার গড়ার স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে পারেননি।

বর্তমান সরকার তারই স্বপ্নের বাস্তবায়নে কাজ করছে বলে মন্তব্য করেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। অনুষ্ঠানে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের জ্যেষ্ঠ সচিব এন এম জিয়াউল আলমসহ ঊধ্বর্তন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

উত্তর দিন

দয়া করে এখানে আপনার মন্তব্য লিখুন
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন